বিধানসভা উপনির্বাচনের প্রার্থী তালিকা ঘোষণা তৃণমূলের

লোকসভা নির্বাচন শেষ হয়েছে দিন কয়েক আগেই। এবার রাজ্যে উপ-নির্বাচন। আগামী ১০ জুলাই রাজ্যের ৪টি বিধানসভা কেন্দ্রে উপনির্বাচন হবে। আর সেই নির্বাচনকে সামনে রেখেই প্রার্থীদের নামের তালিকা প্রকাশ করল শাসক দল। উল্লেখ্য, এবার শাসক দল যাদের নাম ঘোষণা করলো তাদের মধ্যে আবার ২ জনই লোকসভায় তৃণমূলের পরাজিত প্রার্থী।

রাজ্যের শাসক দল মানিকতলার প্রার্থী হিসেবে প্রয়াত সাধন পাণ্ডের স্ত্রী সুপ্তি পান্ডের নাম ঘোষণা করেছে। এর আগে এই বিধানসভার বিধায়ক ছিলেন সাধন পান্ডে। অনেকদিন ধরে এই কেন্দ্র বিধায়ক শূন্য ছিল। সাধন পান্ডের মৃত্যুর পর তাঁর মেয়ে শ্রেয়া পান্ডের নামও উঠে এসেছিল। তবে শেষপর্যন্ত সুপ্তি পান্ডেকেই বেছে নিয়েছে তৃণমূল। মায়ের টিকিট পাওয়া নিয়ে আজ সংবাদমাধ্যমের সামনে ক্ষোভপ্রকাশ করেন শ্রেয়া।

আসন্ন উপনির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেসের রানাঘাট দক্ষিণের প্রার্থী মুকুটমণি অধিকারী। লোকসভায় হেরে যাওয়ার পরও রাজ্যের শাসক দল ফের তাঁর উপরেই ভরসা রেখেছন। এর আগে তিনি ওই এলাকার BJP বিধায়ক ছিলেন। কিন্তু লোকসভা ভোটের আগে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের মিছিলে গিয়ে সরাসরি তৃণমূলে যোগ দেন তিনি।

বাগদা বিধানসভায় মধুপর্ণা ঠাকুর (মমতাবালা ঠাকুরের কন্যাকে) প্রার্থী হিসেবে বেছে নিয়েছে তৃণমূল। এর আগে এই এলাকার বিধায়ক ছিলেন বিশ্বজিৎ দাস। লোকসভা ভোটের আগে তিনি দল পরিবর্তন করে তৃণমূলের টিকিটে প্রার্থী হিসেবে দাঁড়িয়েছিলেন। কিন্ত শান্তুনু ঠাকুরের সামনে কোণঠাসা হয়ে পড়েন। মতুয়াগড়ে ঝুঁকি এড়াতে মধুপর্ণা ঠাকুরকে প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করেছে তৃণমূল কংগ্রেস।

রায়গঞ্জে কৃষ্ণ কল্যাণীকে প্রার্থী করল রাজ্যের শাসক দল। লোকসভায় হেরে গেলেও উপ-নির্বাচনে ফের তাঁর উপর ভরসা রাখল শাসক দল। এর আগে বিধানসভা ভোটে রায়গঞ্জ কেন্দ্র থেকে BJP-র হয়ে লড়াই করেছিলেন তিনি এবং ২০ হাজার ভোটে জয়ী হয়েছিলেন। কিন্তু কয়েক মাস পর তিনি বিধায়ক পদ ত্যাগ করেন এবং তৃণমূলে যোগ দেন।

সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল-https://www.youtube.com/@NagarNama424

ফলো করুন ফেসবুক পেজ-https://www.facebook.com/nagarnamanews

Leave a Reply

Your email address will not be published.