পৃথিবীর ৭ টি প্রাচীনতম প্রাণী,যারা এখনও জীবিত

পৃথিবীর হাজার হাজার বছরের ইতিহাসে ক্রম বিবর্তনের হাত ধরে জন্ম নিয়েছে অনেক প্রাণী। আবার প্রকৃতির নিয়মেই হারিয়ে গেছে তারা। কিছু প্রাণী সম্পূর্ণরূপে বিলুপ্ত, আবার কিছু বিলুপ্তপ্রায়। কিন্তু এখনও এমন কিছু প্রাণী রয়েছে, যারা মানুষেরও প্রায় কয়েক লক্ষ বছর আগে এই পৃথিবীতে এসেছে আর এখনও বসবাস করে চলেছে। আসুন জেনে নেওয়া যাক এমনই ৭টি প্রাচীনতম প্রাণী সম্পর্কে।

হর্সশু ক্র্যাব (Horseshoe crab) : এই সামুদ্রিক অর্থোপড প্রজাতির প্রাণী পৃথিবীতে প্রায় ৪৫০ মিলিয়ন বছর ধরে বসবাস করছে। নীল রঙের রক্তের কারণে চিকিৎসা বিজ্ঞানে এই প্রাণীর ভূমিকা তাৎপর্যপূর্ণ।

নটিলাস (Nautilus) : নটিলাস একটি সর্পিল খোলস যুক্ত ম্যান্টিস চিংড়ি। এটি প্রাচীন সেফালোপড পরিবারের অন্তর্ভুক্ত। এই প্রাণীটি প্রায় কয়েকশো মিলিয়ন বছর ধরে পৃথিবীতে রয়েছে। সাধারণত গভীর সমুদ্রে এই প্রাণীর বাস।

ল্যাম্প্রে (Lamprey) : ল্যাম্প্রে এক প্রজাতির মাছ। এই মাছগুলি চোয়ালবিহীন এবং এদের মুখের চারপাশে এক ধরনের ডিস্ক থাকে, যার মধ্যে এদের দাঁত থাকে। প্রাণীটি প্রায় ৩৬০ মিলিয়ন বছর ধরে পৃথিবীতে বসবাস করছে।

গবলিন হাঙর (Goblin Shark) : এই গভীর সমুদ্রের প্রাণীটি প্রায় ১২৫ মিলিয়ন বছর ধরে পৃথিবীতে বর্তমান। দীর্ঘ প্রসারিত নাসিকা ও চোয়ালের ভঙ্গি দেখেই একে সহজে চেনা যায়।

কোয়েলাক্যান্থ (Coelacanth) : এটি গভীর সমুদ্রের মাছ। আগে ৬৬ মিলিয়ন বছর ধরে এক বিলুপ্ত প্রাণী হিসেবে ধরা হয়েছিল, কিন্তু পরে তা জীবিত হিসেবে আবিষ্কৃত হয়। প্রাগৈতিহাসিক যুগের মেরুদণ্ডী প্রাণীদের বিবর্তন সম্পর্কে গবেষণায় গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দেয় এই বিশেষ প্রাণী।

ড্রাগনফ্লাই (Dragonfly) : প্রায় ৩২৫ মিলিয়ন বছর আগে এই বৃহৎ ডানাওয়ালা পোকাটির আবির্ভাব ঘটে। দুর্দান্ত ওড়ার পাশাপাশি শিকার করার ক্ষমতার জন্য পরিচিত এই ড্রাগনফ্লাই।

কুমির (Crocodile) : কুমিরেরা প্রায় ৫৫ মিলিয়ন বছর ধরে নানা অভিযোজনের মাধ্যমে পৃথিবীতে বসবাস করছে। মজার বিষয় হল কুমির ও ডাইনোসর একই প্রাণীগোষ্ঠীর অন্তর্ভুক্ত।

Leave a Reply

Your email address will not be published.