ভারতে ‘পুনর্জন্ম’ পাকিস্তানের তরুণীর, নিখরচায় হল হৃদযন্ত্রের প্রতিস্থাপন

ভারতে এসে পুনর্জন্ম হল পাক তরুণীর। দিল্লি থেকে আসা হৃদপিণ্ড প্রতিস্থাপনে জীবন ফিরে পেলেন পাকিস্তানের করাচির বছর উনিশের আয়েশা রাশান। আর গোটাটাই হল নিখরচায়। ত্রাতার ভূমিকায় চেন্নাইয়ের বেসরকারি হাসপাতাল ও শহরের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা।

উচ্চশিক্ষায় ফ্যাশন ডিজ়াইন নিয়ে এগোনোর ইচ্ছা আয়েশার। কিন্তু একে অভাবের সংসার। তার উপর বাধ সাধল হৃদপিণ্ডের সমস্যা। চেন্নাইয়ের বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করার পর সমস্যা আরও জটিল হতে থাকে। এরপর ঐ তরুণীকে রাখা হয় একমো সাপোর্টে। যদিও এতে নিশ্চিত হওয়া যায়নি। আয়েশার হার্টের পাম্পের ভালবে লিকেজ ধরা পড়ে। যার জেরে সম্পূর্ণ হার্ট ট্রান্সপ্ল্যান্টের দরকার হয়।

আরও পড়ুন: এভাবেও ফেরা যায়! অতিরিক্ত সময়ে হারা ম্যাচ জিতে ISL-এর সেমিফাইনালে বাজিমাত মুম্বই সিটির

এদিকে হৃদপিণ্ড প্রতিস্থাপনে খরচ ৩৫ লাখ টাকা। আয়েশার পরিবারের পক্ষে যা জোগাড় করা কার্যত অসম্ভব। এমন সময়েই এগিয়ে আসে শহরের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা। দিল্লিতে হৃদযন্ত্রের সন্ধান পেয়ে আর দেরি করেনি পরিবারও। সংস্থার উদ্যোগে ও হাসপাতালের চিকিৎসকদের সহযোগিতায় সম্পূর্ণ নিখরচায় হৃদপিণ্ড প্রতিস্থাপন সফল হয় ওই তরুণীর। চিকিৎসকরা জানান, সৌভাগ্যবশত সেসময় হৃদযন্ত্রের আবেদনকারী কেউ ছিলেন না। তাই বিদেশি হওয়া সত্ত্বেও আয়েশার জন্য হৃদপিণ্ডের ব্যবস্থা করা যায়।

বর্তমানে স্থিতিশীল রয়েছে ওই তরুণী। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ, চিকিৎসকমণ্ডলী ও স্বেচ্ছাসেবী সংস্থাকে কৃতজ্ঞতা জানিয়েছে তার পরিবার। ভারতে জীবন ফিরে পেয়ে এবার পাকিস্তানে ফেরত যাবে আয়েশা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.