এই মরশুমের ISL-র প্রথম সেমিফাইনাল, কলিঙ্গে মুখোমুখি মোহনবাগান-ওড়িশা

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ভুবেনশ্বরের কলিঙ্গ স্টেডিয়ামে ISL-র সেমিফাইনালে মুখোমুখি হতে চলেছে মোহনবাগান সুপার জায়েন্টস ও ওড়িশা FC। সদ্য ISL লিগ শিল্ড চ্যাম্পিয়ন মোহনবাগান বেশ আত্মবিশ্বাস নিয়েই মাঠে নামবে তা বলাবাহুল্য। অন্যদিকে ওড়িশা হোম ম্যাচের পুরো সুবিধা নেওয়ার প্রচেষ্টায় থাকবে। উল্লেখ্য, এর আগে এই মরশুমে মোট ৪ বার মুখোমুখি হয়েছে এই দু’দল, যার মধ্যে ২ বার ড্র হয়েছে এবং ১ বার করে জয় পেয়েছে উভয়ই। এর মধ্যে ২টি ম্যাচ ছিল AFC কাপের। সেখানে গ্রুপের প্রথম পর্বের ম্যাচে মোহনবাগান ৪-০ ব্যবধানে জয় পেলেও কলকাতায় ৫ গোল হজম করে পরাজয় স্বীকার করতে হয়।

প্রসঙ্গত, গতবছর ISL কাপ জয় করেছিল মোহনবাগান সুপার জায়েন্টস। একটুর জন্য হাতছাড়া হয়েছিল লিগ শিল্ড। এবছর সেই আকাঙ্ক্ষা পূর্ণ হয়েছে। মরশুমের শুরুতেই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ইস্টবেঙ্গলকে হারিয়ে ডুরান্ড কাপও নিজেদের নামে করেছে। এবার দেখার ISL কাপ জিতে এক মরশুমে ৩টে ট্রফি নিজেদের দখলে করতে পারে কিনা তারা।

মোহনবাগান কোচ হাবাসের চিন্তায় রয়েছে আত্মতুষ্টি। তবে তাঁর বিশ্বাস কলিঙ্গ জয় করেই ফিরবে তাঁর ছেলেরা। বর্তমানে এই মরশুমে দুরন্ত ছন্দে রয়েছে মোহনবাগান। শেষ ৫টি ম্যাচের মধ্যে ৪টি ম্যাচেই জয় পেয়েছে হাবাস ব্রিগেড। আজকের ম্যাচে অবশ্যই নজরে থাকবে বাগানের দুই নয়নের মণি পেত্রাসোস ও কামিংস। পেত্রাসোস এই মরশুমে ২০টি ম্যাচে ১০টি গোল ও ৬টি অ্যাসিস্ট করেছেন। অন্যদিকে ২০টি ম্যাচে ১০টি গোল ও ২টি অ্যাসিস্ট করেছেন কামিংসও। লিগ শিল্ড চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর অবশ্যই সমর্থকদের প্রত্যাশা অনেক বেশি তাঁদের কাছ থেকে।

অন্যদিকে এবছর ভালোই ছন্দে মরশুম শুরু করেছিল সার্জিও লোবেরার ওড়িশা FC। তবে লিগের শেষটা মোটেও ভালো হয়নি। লিগের শেষ ৫ ম্যাচে ১টি ম্যাচ জয় ও ১টি ড্র করে। ৩টি ম্যাচেই হারের মুখ দেখতে হয়। তবে মরশুম শুরুর আগে থেকেই ISL-র অন্যতম দাবিদার হিসেবে নাম উঠে এসেছিল লোবেরা বাহিনীর। এখন দেখার বিষয় শিল্ড হাতছাড়া হলেও কাপ তারা নিজেদের নামে করতে পারে কিনা। অবশ্যই আজকের ম্যাচে নজর থাকবে প্রাক্তন মোহনবাগানী রয়কৃষ্ণর উপর। এই মরশুমে তিনি ২৩টি ম্যাচ খেলে ১২টি গোল করেছেন। অন্যদিকে পেছনে নেই তাঁর সঙ্গী দিয়েগো মরিসিও, তিনি ২১টি ম্যাচে ১১টি গোল করেছেন। ওড়িশা FC-কে দুরন্ত মোহনবাগানের বিরুদ্ধে জয় পেতে হলে অবশ্যই আজ জ্বলে উঠতে হবে এই দু’জনকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.