ISRO-র মুকুটে ৯টি সাফল্যময় মহাকাশ অভিযানের পালক

ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ISRO (Indian Space Research Organisation) জন্মের প্রারম্ভ থেকে ধীরগতিতে সাফল্য পেয়েছে তার উৎক্ষেপিত বিভিন্ন মিশনের মাধ্যমে। যত দিন এগিয়েছে, ISRO জায়গা করে নিয়েছে পৃথিবীর অন্যতম দেশগুলির মধ্যে যারা মহাকাশে সফলভাবে বিভিন্ন মিশন সম্পন্ন করতে পেরেছে।

এখানে ISRO-র নয়টি সবথেকে সাফল্যময় মহাকাশ অভিযান সম্পর্কে উল্লেখ করা হলো

আর্যভট্ট
১৯৭৫ সালে প্রথম ভারতীয় স্যাটেলাইট আর্যভট্ট মহাকাশে পাঠায় সোভিয়েত ইউনিয়ন। জ্যোতির্বিদ্যা ও সৌর পদার্থবিদ্যা নিয়ে পরীক্ষা নিরীক্ষা ছিল এর প্রধান উদ্দেশ্য।

SLV
পরবর্তীতে ১৯৮০ সালে উপগ্রহ উৎক্ষেপণ যান বা Satellite Launch Vehicle পাঠানো হয়। এর মূল কাজ ছিল পৃথিবী সৃষ্ট মেঘের আবরণকে আরও ভালো করে বোঝা।

PSLV
মেরু উপগ্রহ উৎক্ষেপণ যান বা PSLV হল ইসরোর একটি সফল অপারেশনাল লঞ্চ ভেহিকল। এর সাহায্যে মহাকাশে মহাকাশযান বহন করা যায়। উল্লেখযোগ্য কিছু PSLV হল চন্দ্রায়ন-1 , মঙ্গলায়ান, অ্যাস্ট্রোস্যাট, আদিত্য-L1, অ্যামাজোনিয়া প্রভৃতি।

INSAT
১৯৮৩ সালে শুরু হওয়া INSAT বা The Indian National Satellite হল এমন একটি উপগ্রহ ব্যবস্থা যার মাধ্যমে টেলিযোগাযোগ, সম্প্রচার, আবহাওয়া বিদ্যা এবং অনুসন্ধান ও উদ্ধার সংক্রান্ত বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ কাজ সংঘটিত হয়।

GSAT
২০০১ সালে GSAT বা Geosynchronous Satellite প্রথম উৎক্ষেপণ করা হয় ডিজিটাল অডিও তথ্য এবং ভিডিও সম্প্রচারের জন্য। ২০১৮ সাল পর্যন্ত প্রায় কুড়িটি GSAT স্যাটেলাইট মহাকাশে পৌঁছে গেছে ইসরোর মাধ্যমে।

চন্দ্রায়ন-1
২০০৮ সালে ভারতের প্রথম চন্দ্র অভিযানের অংশ হয় চন্দ্রায়ন-1। চন্দ্রপৃষ্ঠের উপরে ১০০ কিলোমিটার উচ্চতায় এটি চাঁদকে পরিক্রম করে এবং বিভিন্ন রাসায়নিক, খনিজ এবং চাঁদের ফটো জিওলজিক ম্যাপিং এর মত গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পৃথিবীতে পাঠায়।

মঙ্গলায়ণ
২০১৩ সালে উৎক্ষেপিত Mars Orbiter Mission (MOM) বা মঙ্গলায়নের সাফল্য ভারতকে এশিয়ার প্রথম এবং পৃথিবীর চতুর্থ মহাকাশ গবেষণা সংস্থা হিসেবে স্বীকৃতি দেয়। ২০২২ সালে এর মঙ্গল যাত্রা সমাপ্ত হয়। বিভিন্ন বৈজ্ঞানিক অনুসন্ধান মিলেছে এর মাধ্যমে।

চন্দ্রায়ন-3
২০২৩ সালের ২৩ শে অগাস্ট চাঁদের দুর্গম দক্ষিণ মেরুর কাছে প্রথমবার ইসরো মহাকাশযান পাঠায়। এর মূল উদ্দেশ্য ছিল চাঁদের মাটিতে সফল অবতরণ, রোভারের চলাফেরা এবং ইন সিটু বৈজ্ঞানিক পরীক্ষা নিরীক্ষা।

আদিত্য-L1
২০২৩ সালের সেপ্টেম্বরে সূর্যের আবহ পর্যবেক্ষণ করতে আদিত্য-L1 উৎক্ষেপণ করে ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা। সেই বছরের ডিসেম্বরেই নির্দিষ্ট ল্যাগ রেঞ্জ পয়েন্ট পৌঁছায় এবং এখনো পর্যন্ত নানারকমের তথ্য পৃথিবীতে পৌঁছাচ্ছে আদিত্য-L1।

সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল-https://www.youtube.com/@NagarNama424

ফলো করুন ফেসবুক পেজ-https://www.facebook.com/nagarnamanews

Leave a Reply

Your email address will not be published.